আমার এক বান্ধবীর জীবনের ঘটনা তার জুবানিতে

(Amar Ek Bandhobir Jiboner Ghotona Taroi Jubanite)

নমস্কার বন্ধুগন আমি সুজিত, আমাকে হয়তো অনেকেই জানেন, কিন্ত আজ যে ঘটনাটি আমি তোমাদের বলতে চলেছি সেটা আমার এক বান্ধবীর জীবনের ঘটনা , তাই ও তোমাদের সাথে নিজের জিবনের ঘটনা শেয়ার করছে।
নমস্কার বন্ধুগন, আমি পায়েল, আমার স্মার্টফোন নেই তাই ওর মোবাইল এ আমার জীবনের এই দুর্লভ ঘটনা টি শেয়ার করছি। তবে বিনিময়ে আমাকে একবার ওকে সুযোগ দিতে হবে করার।

অনেক কিছু তো বললাম এবার আসল ঘটনায় আসা যাক। তবে তার আগে নিজের সম্পর্কে একটু বর্ননা দেওয়া যাক। নাম তো শুনলে, বয়স ২২, হাইট ৫’৪”, ফিগার ৩৬-৩০-৩৪, গায়ের রং ফর্সা, আর দেখতে ভালো কিনা জানিনা তবে বন্ধুরা আমাকে এঞ্জেল, কুইন ইত্যাদি এসব বলে ডাকতো, আর যদি কোথাও যেতাম তো সবাই আমার দিকে তাকিয়ে থাকতো, তাতে সাথে বান্ধবীরা থাকুক কি না থাকুক, ৮-৯ এ পড়া ছেলে থেকে শুরু করে কত কাকুরা পর্যন্ত আমার দিকে তাকিয়ে থাকতো, এমনকি কতো মেয়ে পর্যন্ত আমার দিকে একদৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকতো।

যাই হোক এবার আসল কথায় আসা যাক। যখন কার কথা তখন আমার বয়স ১৮, সবে মাত্র মাধ্যমিক দিয়ে পিসির বাড়িতে চলে যায় ১১-১২ এ পড়ার জন্য। তখন আমার দিকে অনেক ছেলে তাকাতো তবে কেউ শরীরের দিকে তাকাতো না, কারন তখন বুকটা সেরকম ছিল না,মাত্র ৩০ সাইজ ছিল। আর কি ভাবেই বা বাড়বে, তখন পর্যন্ত কোনো ছেলের হাত যে পড়েনি আমার বুকে।  যাই হোক এবার আসল কথায় আসা যাক। আমি পিসির বাড়িতে গিয়ে টিউসন শুরু করলাম, আর পিসির একটাই ছেলে, ওর নাম ও সুজিত। ও আমার থেকে মাত্র কিছুদিনের বড়ো, তাই ওকে আমি বন্ধুই ভাবী। আমি ওর সাথে অনেক কিছু ই শেয়ার করতাম।

আর ওকে আমি আমার বেষ্ট ফ্রেন্ড মনে করতাম তাই এক রুমেই শুতাম। আর ও আমার সাথে দুষ্টুমি করতো। একদিন শরীর ঠিক লাগছিল না তাই জলদি করে ঘুমিয়ে পড়লাম, হটাত মাঝ রাতে ঘুম ভেঙে গেল, মনে হল নাইটি র ভেতর কিছু ঢুকেছে, তবে শরির টা ভালো লাগছিল না তাই আবার ঘুমিয়ে পড়লাম। এভাবে চলতে চলতে একদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে খেয়াল করলাম আমার দুধ গুলো একটু বড়ো বড়ো লাগছে আর বোঁটা গুলো শক্ত হয়ে আছে।

সাধারণত কেউ টিপলে এরম হয়, কিন্ত আমি ভাবলাম ও কি এরম করবে, মনে হয় না, তাই কি ভাবে এটা হল তা কিছু তেই বুঝতে পারছিলাম না, রাতে শোবার পর ও ভাবনার জন্য ঘুম আসছিল না, তাই কষ্ট করে কোনো রকমে ঘুমালাম, আবার হটাত ঘুম ভেঙে গেল, আজ আবার মনে হলো কি যেন রয়েছে নাইটি র ভেতর এ, তাই কি সেটা দেখার জন্য আমি আমার হাতটা ভেতর এ ঢুকিয়ে জিনিস টা বের করলাম।

ওটা বের করে তো আমি আবাক, একি এ যে সূজিত র হাত, ও তবে এসব করছে এত দিন ধরে, তারপর আবার ভাবলাম মনে হয় ঘুমের মধ্যে ভুল করে হয়ে গেছে, তাই ওটা নিয়ে সেদিন কিছু ভাবলাম না। রাতে শুয়ে আছি, ঘুম আসছিল না, তাই শুয়ে আছি, একটু ঘুম ঘুম লেগেছে আর মনে হল নাইটি র ভেতর কি যেন ঢুকছে,  বুঝতে পারলাম ওটা ওর হাত, তবে ও ওটা ইচ্ছে করে করছে কি না সেটা দেখার জন্য ঘুমের ভান করে চুপ করে শুয়ে থাকলাম।

আর যা দেখলাম তাতে আমি পুরো অবাক হয়ে গেলাম, দেখলাম ও ইচ্ছে করে হাত টা ঢুকিয়ে আমার দুধ গুলো টিপতে লাগল, তবে আমার বুকে এই প্রথম বার কোনো ছেলের হাত পড়ল তাই কি যে করি ভেবে পাচ্ছিলাম না, আর ও ওদিক থেকে টিপেয় যাচ্ছে।

এভাবে মিনিট পনের টেপার পর হাত টা বের করে নিয়ে ও কি যেন করতে লাগলো, তার পর ও ঘুমিয়ে গেল, কিন্তু আমার আর কিছু তেই ঘুম আসছিল না, আমার বুকে এই প্রথম বার কোনো ছেলের হাত পড়ল তাই আমি পুরো শিহরিত হয়ে উঠছিলাম, যাই হোক সে দিন কোন রকম এ ঘুমালাম।

কিন্তু সকাল এ উঠেয় ওর দিকে যতবার তাকাচ্ছি চোখ টা যেন আর কিছু তেই সরাতে পারছিলাম না, কেমন যেন একটা কামুক নজর পড়ে যাচ্ছিল ওর দিকে। যাই হোক সেদিন জলদি খাবার খেয়ে শুয়ে পড়লাম। আর শুয়ে ওর কথা ভাবতে লাগলাম। ১০ মিনিট পর ও এলো, আর ও আসছে বুঝতে পেরে আমি ঘুমের ভান করে চুপ করে শুয়ে থাকলাম। ও শুয়ে পড়ল, আমি ঘুমিয়ে গেছি ভেবে আবার একই রকম ভাবে আমার দুধ গুলো টিপতে লাগল।

অনেকক্ষণ ধরে টিপল, মোটা মুটি ৪০মিনিট ধরে, আর এদিকে আমার নীচে পুরো জল পড়তে লাগলো। ও কিছুক্ষণ পর হাত টা বের করে নিয়ে কি যেন করল তার পর ঘুমিয়ে পড়ল।

কিন্তু আমার আর কিছু তেই ঘুম আসছিল না। যাই হোক কোন রকম এ ঘুমালাম। তার পর থেকে রোজ ও আমার দুধ গুলো টিপতে লাগল। আর আমি ও বেশ মজা পাচ্ছিলাম তাই ওকে নানা ভাবে সুবিধা করে দিচ্ছিলাম। এভাবে চলতে চলতে ও বেশ মজা পাচ্ছিলো আর আমিও, তবে কিছু দিন এভাবে চলতে চলতে মনে হয় ও বুঝতে পেরে গেছিলো যে আমি ঘুমের ভান করে থাকি, তাই আমার সামনে কিছু অশালীন  আচরণ করতে লাগলো।

যেমন আমার সামনে ই ব্লু ফিল্ম দেখতো, প্যান্ট এর ভিতর হাত ঢুকিয়ে কি যেন করতো, আমার শরীরে সব সময় হাত দেবার চেষ্টা করত, সবসময় আমার গা ঘেষে বসতো, পাশে চেয়ার ফাঁকা থাকলেও আমাকে কোলে বসতে বলতো,ই যদি না বসতাম তো রাগ করত, ইত্যাদি।

এভাবে চলতে চলতে ধীরে ধীরে আরও বেশি হতে শুরু করলো, আমাকে কোলে বসিয়ে পিছন থেকে আমাকে জড়িয়ে ধরতো, সবসময় আমার পিঠে হাত দিয়ে থাকতো, শোবার পর আমার গায়ে পা চাপাতো, একেবারে পুরো ঘেঁষে শুতো। আমি হয়তো কখনো উল্টো দিকে শুয়ে আছি তো এসে আমার উপর শুয়ে পড়তো, আমি সরতে বললেও সরতো না।

Loading...

Comments

Scroll To Top